1. admin@nagortv.com : admin12 :
  2. nagortv2020@gmail.com : Shamsul Hoque Mamun : Shamsul Hoque Mamun
বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২, ০৪:০৮ অপরাহ্ন

লাইব্রেরীতে টাকা চুরি নিয়ে কাঁটছেনা কালো ধোঁয়াশা; নিরব লাইব্রেরিয়ান

হৃদয় সরকার বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত সময় : বৃহস্পতিবার, ২৩ জুন, ২০২২
  • ৫৭ বার দেখেছেন

গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের(বশেমুরবিপ্রবি) কেন্দ্রীয় লাইব্রেরী “একুশে ফেব্রুয়ারি ভবন” থেকে হারিয়ে যাওয়া টাকা নিয়ে তৈরি হয়েছে কালো ধোঁয়াশা, এতে মুখ খুলছেন না লাইব্রেরিয়ান। জানা যায়, লাইব্রেরীয়ান (ভারপ্রাপ্ত) নাছিরুল ইসলামের ব্যবহৃত টেবিলের ড্রয়ের থেকে ৭হাজার টাকা চুরি হয়ে যায়। সেটি আবার আকস্মিকভাবে ফিরেও পাওয়া যায়। তবে টাকা ফিরে পাওয়ার আগে লাইব্রেরীর কর্মচারীদের জিজ্ঞাসাবাদ করলে; চুরি হয়ে যাওয়া টাকা নিয়ে কেউ মুখ খুলেনি। অতঃপর কিছুক্ষণের মধ্যেই হারিয়ে যাওয়া টাকা বইয়ের ভিতরে খুঁজে পাওয়া যায় বলে জানা যায়। লাইব্রেরীর কর্মচারীদের ভাষ্যমতে, টাকা হারানোর বিষয়ে লাইব্রেরিয়ান তার অফিস কর্মচারী আবু সাঈদকে সন্দেহ করে জিজ্ঞাসাবাদ করে। কিন্তু তিনি টাকার বিষয়ে কিছু জানেন না বলে মন্তব্য করেন। এবিষয়ে আবু সাঈদের সাথে কথা বলতে গেলে তিনি নানাবিধ অজুহাত দেখিয়ে বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার জন্য সাংবাদিকদের অনুরোধ করেন। তিনি বলেন, টাকা হারানোর বিষয়ে আমি কিছুই জানিনা। কিন্তু লাইব্রেরিয়ান স্যার আমাকে জিজ্ঞাসাবাদ করার পর বিষয়টি সম্পর্কে জানতে পেরেছি। তবে হাতে একটি বিজ্ঞপ্তি নিয়ে আবু সাঈদ বলেন, বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখিত; লাইব্রেরির কর্মচারীদের সামনে লাইব্রেরিয়ান টাকা চুরির বিষয়টি অস্বীকার করেছেন। এবং বিজ্ঞপ্তিতে একাধিক কর্মচারীর স্বাক্ষরও দেখা গেছে। তবে বিজ্ঞপ্তিতে লাইব্রেরিয়ানের নাম ব্যবহার করা হলেও তার কোনো স্বাক্ষর এবং সিল দেখা যায়নি। বিজ্ঞপ্তি সম্পর্কিত বিষয়ে জানতে চাইলে লাইব্রেরিয়ান বলেন, আমার অনুমতি ব্যতিত বিজ্ঞপ্তিটি তৈরি করা হয়েছে, এ বিষয়ে আমি অবগত ছিলাম না এবং চুরি হয়ে যাওয়া টাকা সম্পর্কিত বিষয়ে তিনি কোনো বক্তব্য দিবেন না বলে সরাসরি মন্তব্য করেন। তবে আবু সাঈদের বিরুদ্ধে এর পূর্বে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগ থেকে আড়াই লক্ষ টাকা চুরি করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এর আগেও তার বিরুদ্ধে টাকা আত্তসাৎ করার অভিযোগ রয়েছে। তবে একই ব্যক্তির বিরুদ্ধে একাধিকবার টাকা আত্তসাতের অভিযোগ পাওয়া গেলেও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এখন পর্যন্ত কোনো প্রকার ব্যবস্থা গ্রহন করেনি। এ বিষয়ে জানতে চাইলে (ভারপ্রাপ্ত) রেজিস্টার মুরাদ হোসেন বলেন, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগ থেকে টাকা হারানোর বিষয়ে আমরা অভিযোগ পেয়েছি এবং তদন্ত কমিটিও গঠন করা হয়েছে ও তদন্ত রিপোর্ট প্রদান করা হয়েছে। কিন্তু লাইব্রেরির বিষয়ে এখন পর্যন্ত লিখিত কোনো অভিযোগ পাইনি। তিনি আরো বলেন, আমরা আবু সাঈদের বিরুদ্ধে মৌখিক কিছু অভিযোগ পেয়েছি। আর তার প্রেক্ষিতে ভাইস চ্যান্সেলরের সাথে কথা বলে আমরা তদন্ত কমিটি গঠন করবো এবং দোষী সাবস্ত হলে সেটির ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category

advocat mosharof

নাগর ফাউন্ডেশন

সাম্প্রতিক পোস্ট

ফেইজবুকে আমাদের অনুসরণ করুন

August 2022
M T W T F S S
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031  
© All rights reserved © 2020-2021 nagortv.com
Theme By TechMas